Best Songs Of James

James is one of the greatest Bangladeshi singer-songwriter, guitarist, and composer, and a playback singer who was born on 2 October 1964, in Naogaon, Bangladesh. His full name is Faruq Mahfuz Anam. He is the son of Mojammel Haque and Jahanara Khatun. James is the lead singer, songwriter, and guitarist of the famous Bangladeshi rock band Nagar Baul. Some of the hit albums of James are Ananya (1989), Palabe Kothay (1995), Dukhini Dukkho Korona (1997), Thik Achhe Bondhu (1999), etc. He is an award-winning singer and also sang in four Bollywood films. The films are Gangster (2006), Woh Lamhe (2006), Life in a Metro (2007), and Warning (2013).

Over the years James has sung many songs. Some of the most popular songs of James are Bangladesh, Maa, Baba, Mirabhai, Jedin Bondhu Chole Jabo, Taray Taray, Kobita Tumi Shopnocharini, Guru Ghor Banaila Ki Diya, Pagla Hawa, Likhte Parina, etc. 

List Of 10 Best Songs Of Jamas With Lyrics      

1. Bangladesh

তুমি মিশ্রিত লগ্ন মাধুরীর জলে ভেজায় কবিতায়

আছো সরোয়ার্দী,শেরেবাংলা, ভাসানীর শেষ ইচ্ছায়

তুমি বঙ্গবন্ধুর রক্তে আগুনে জ্বলা জ্বালাময়ী সে ভাষন

তুমি ধানের শীষে মিশে থাকা শহীদ জিয়ার স্বপন,

তুমি ছেলে হারা মা জাহানারা ঈমামের একাত্তরের দিনগুলি

তুমি জসীম উদ্দিনের নকশী কাথার মাঠ, মুঠো মুঠো সোনার ধুলি,

তুমি তিরিশ কিংবা তার অধিক লাখো শহীদের প্রান

তুমি শহীদ মিনারে প্রভাত ফেরীর, ভাই হারা একুশের গান,

আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি,

জন্ম দিয়েছ তুমি মাগো, তাই তোমায় ভালোবাসি।

আমার প্রানের বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি

প্রানের প্রিয় মা তোকে, বড় বেশী ভালোবাসি।

তুমি কবি নজরুলের বিদ্রোহী কবিতা উন্নত মম্‌ শীর

তুমি রক্তের কালিতে লেখা নাম, সাত শ্রেষ্টবীর

তুমি সুরের পাখি আব্বাসের, দরদ ভরা সেই গান

তুমি আব্দুল আলীমের সর্ব্নাশা পদ্মা নদীর টান।

তুমি সুফিয়া কামালের কাব্য ভাষায় নারীর অধিকার

তুমি স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের, শাণীত চুরির ধার

তুমি জয়নুল আবেদীন, এস এম সুলতানের রঙ তুলীর আছড়

শহীদুল্লা কায়সার, মুনীর চৌধুরীর নতুন দেখা সেই ভোর।

আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি,

জন্ম দিয়েছ তুমি মাগো, তাই তোমায় ভালোবাসি।

আমার প্রানের বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি

প্রানের প্রিয় মা তোকে, বড় বেশী ভালোবাসি।

2. Maa

দশ মাস দশ দিন করে গর্ব ধারন

কষ্টের তীব্রতায় করেছো আমায় লালন

হঠাৎ কোথায় না বলে হারিয়ে গেলো

জন্মান্তরের বাধঁন কোথা হারালো?

সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে

খুঁজে দেখো পাবে দূর নক্ষত্র মাঝে

রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস

কোথায় আছে কেমন আছে মা?

ভোরের তারা রাতের তারা মাকে জানিয়ে দিস

অনেক কেদেঁছি আর কাঁদতে পারিনা

মায়ের কোলে শুয়ে হারানো সেই সুখ

অন্য মুখে খঁজে ফিরি সেই প্রিয় মুখ

অনেক্  ঋনের জালে মাগো বেধেছিলে তাই

বিষাদের অভয়ারন্যে ভয় তবু পাই

সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে

খুঁজে দেখ পাবে দূর নক্ষত্র মাঝে

রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস

কোথায় আছে কেমন আছে মা?

ভোরের তারা রাতের তারা মাকে জানিয়ে দিস

অনেক কেদেঁছি আর কাঁদতে পারিনা

সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে

খুঁজে দেখো পাবে দূর নক্ষত্র মাঝে

রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস

কোথায় আছে কেমন আছে মা?

ভোরের তারা রাতের তারা মাকে জানিয়ে দিস

অনেক কেদেঁছি আর কাঁদতে পারিনা

3. Baba

ছেলে আমার বড় হবে মা কে বলতো সে কথা

হবে মানুষের মত মানুষ এক লেখা ইতিহসের পাতায়

নিজ হাতে খেতে পারতামনা

বাবা বলতো ও খোকা

যখন আমি থাকবোনা , কি করবিরে বোকা?

এ তো রক্তের সাথে রক্তের টান 

স্বর্থের অনেক উর্ধ্বে

হঠাৎ অজানা ঝড়ে তোমায় হারালাম

মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়লো

বাবা কতোদিন কতোদিন দেখিনা তোমায়

কেউ বলেনা তোমার মত কোথায় খোকা ওরে বুকে আয়

বাবা কতো রাত কতো রাত দেখিনা তোমায়

কেউ বলেনা মানিক কোথায় আমার ওরে বুকে আয়।

চশমাটা তেমনি আছে, আছে লাঠি ও পান্জাবি তোমার

ইজি চেয়ারটাও আছে, নেই সেখানে অলস দেহ শুধু তোমার

আযানের ধ্বনি আজও শুনি, ভাঙ্গাবেনা ভোরে ঘুম জানি

শুধু শুনিনা তোমর সেই দরাজ কন্ঠে পড়া পবিত্র কোরআনের বানি।

বাবা কতোদিন কতোদিন দেখিনা তোমায়

কেউ বলেনা তোমার মত কোথায় খোকা ওরে বুকে আয়

বাবা কতো রাত কতো রাত দেখিনা তোমায়

কেউ বলেনা মানিক কোথায় আমার ওরে বুকে আয়

4. Mirabhai

ঝাকানাকা ঝাকানাকা ঝাকানাকা  দেহ দোলানা

ঝাকানাকা ঝাকানাকা ঝাকানাকা  দেহ দোলানা

মীরাবাই

হেইলা দুইলা হেইলা দরবার নাচায়

মীরাবাই

হেইলা দুইলা হেইলা দরবার নাচায়

ঝাকানাকা ঝাকানাকা ঝাকানাকা  দেহ দোলানা

মন বলে মন বলে মন বলে দেহ ঝোঁকা না

বাঁকা ঠোঁটের হাসিতে

হরিনি চোখের ইশারায়

সারা অংগে ঢেউ তুলিয়া

থমক থমক কোমর দোলাইয়া

মীরাবাই

হেই ঝাকানাকা ঝাকানাকা ঝাকানাকা  দেহ দোলানা

মন বলে মন  বলে মন বলে দেহ ঝোঁকা না

বুনো ফুলের সুবাসে

বিরহী মনের কামনায়

সারা জলসায় মাতাম উঠাইয়া

ঝনন ঝনন ঘুঙুর বাজাইয়া

মীরাবাই

হে ঝাকানাকা ঝাকানাকা ঝাকানাকা  দেহ দোলানা

মন বলে মন বলে মন বলে দেহ ঝোঁকা না

মীরাবাই

হেইলা দুইলা হেইলা দরবার নাচায়

5. Jedin Bondhu Chole Jabo

যেদিন বন্ধু চলে যাবো

চলে যাবো বহুদূরে

ক্ষমা করে দিয়ো আমায়

ক্ষমা করে দিয়ো

মনে রেখো কেবল একজন ছিলো

ভালোবাসতো শুধুই তোমাদের

মনে  রেখো কেবল একজন ছিলো

ভালোবাসতো শুধুই তোমাদের

চোরা সুরের টানেরে বন্ধু

মনে যদি ওঠে গান

গানে গানে রেখো মনে

ভুলে যেও অভিমান

মনে রেখো কেবল একজন ছিলো

ভালোবাসতো শুধুই তোমাদের

ভরা নদীর বাঁকে রে বন্ধু

ঢেউয়ে ঢেউয়ে দোলে গান

চলে যেতে হবে ভেবে

কেঁদে উঠে মন প্রান

যেদিন বন্ধু চলে যাবো

চলে যাবো বহুদূরে

ক্ষমা করে দিয়ো আমায়

ক্ষমা করে দিয়ো

মনে রেখো কেবল একজন ছিলো

ভালোবাসতো শুধুই তোমাদের

মনে  রেখো কেবল একজন ছিলো

ভালোবাসতো শুধুই তোমাদের

6. Taray Taray

সুন্দরীতমা আমার

তুমি নীলিমার দিকে তাকিয়ে

বলতে পারো

এই আকাশ আমার

নীলাকাশ রবে নিরুত্তর

মানুষ আমি চেয়ে দেখ

নীলাকাশ রবে নিরুত্তর

যদি তুমি বল আমি

একান্ত তোমার

আমি তারায় তারায় রটিয়ে দেব

তুমি আমার

আমি তারায় তারায় রটিয়ে দেব

আমি তোমার

ক্যামেলিয়া হাতে এই সন্ধায়

ভালোবেসে যতখুশি

বলতে পারো

এই ফুল আমার

ফুল শুধু ছড়াবে সৌরভ

লজ্জায় বলবে না কিছুই

ফুল শুধু ছড়াবে সৌরভ

লজ্জায় বলবে না কিছুই

ফুল থাকবে নীরব

আমি তারায় তারায় রটিয়ে দেব

তুমি আমার

আমি তারায় তারায় রটিয়ে দেব

আমি তোমার

জোছনা লুটালেই

তুমি অধিকার নিয়ে

বলতে পারো

এই জোছনা আমার

এই চাঁদ খুজবে না উত্তর

একবার যদি বল

এই চাঁদ খুজবে না উত্তর

একবার যদি বল আমাকে

আমি থাকবো না নির্বাক

আমি তারায় তারায় রটিয়ে দেব

তুমি আমার

আমি তারায় তারায় রটিয়ে দেব

আমি তোমার

7. Kobita Tumi Shopnocharini

কবিতা,

তুমি স্বপ্নচারিণী হয়ে খবর নিও না

কবিতা,

এই নিশাচর আমায় ভেবোনা সুখের মোহনা।

দেখবে আমাদের ভালবাসা,

হয়ে গেছে কখন যেন

পদ্ম পাতার জল, পদ্ম পাতার জল।

কবিতা,

তুমি স্বপ্নচারিণী হয়ে খবর নিও না

কবিতা,

এই নিশাচর আমায় ভেবোনা সুখের মোহনা।

বেদনা সিক্ত অশান্ত এই মন

খুঁজে ফেরে মেটায় প্রয়োজন,

যতদূর জানে এ ব্যাকুল হৃদয়

নীল বিষের পেয়ালা মনের বাঁধন।

দেখবে আমাদের ভালবাসা,

হয়ে গেছে কখন যেন

পদ্ম পাতার জল, পদ্ম পাতার জল।

কবিতা,

তুমি স্বপ্নচারিণী হয়ে খবর নিও না

কবিতা,

এই নিশাচর আমায় ভেবোনা সুখের মোহনা।

নয়ন গভীরে আঙিনায়

নিবিড়তার ছোঁয়ায় হৃদয় প্রতিমা,

কোথায় হারালে বল পাবো তোমায়

বসন্তে মাতাল আমি এক অপূর্ণতা।

দেখবে আমাদের ভালবাসা,

হয়ে গেছে কখন যেন

পদ্ম পাতার জল, পদ্ম পাতার জল।

কবিতা,

তুমি স্বপ্নচারিণী হয়ে খবর নিও না

কবিতা,

এই নিশাচর আমায় ভেবোনা সুখের মোহনা।

দেখবে আমাদের ভালবাসা,

হয়ে গেছে কখন যেন

পদ্ম পাতার জল, পদ্ম পাতার জল..

8. Guru Ghor Banaila Ki Diya

গুরু ঘর বানাইলা কি দিয়া

দরজা জানালা কিছু নাই

ক্যামনে তোমায় দেখতে পাই

গুরু ঘর বানাইলা কি দিয়া

এই ঘরেতে আমি ছাড়া আর থাকেনা কেহ

পোকা মাকড় খাইয়া গেলো সুন্দর ওই দেহ

তোমার কাছে চাইরে পানা

কইরনা কইরনা মানা

কই গুরু কান্দিয়া কই গুরু কান্দিয়া

ঘর বানাইলা কি দিয়া

গুরু ঘর বানাইলা কি দিয়া

দরজা জানালা কিচ্ছু নাই

ক্যামনে তোমায় দেখতে পাই

গুরু ঘর বানাইলা কি দিয়া

আমার রূহ আমার মাঝে নাইত এখন গুরু

করতে হবে আজ থেকে হায় নতুন জীবন শুরু

রোজ কেয়ামত আসবে কবে

সাজার মেয়াদ শেষ কি হবে

মুক্তিরও স্বাদ নিয়া ,মুক্তিরও স্বাদ নিয়া

ঘর বানাইলা কি দিয়া

গুরু ঘর বানাইলা কি দিয়া

দরজা জানালা কিচ্ছু নাই

ক্যামনে তোমায় দেখতে পাই

গুরু ঘর বানাইলা কি দিয়া

9. Pagla Hawa

পাগলা হাওয়ার তরে

মাটির পিদিম নিভু নিভু করে

ওরে ওরে হাওয়া থামনা রে

বন্ধু আসছে বহুদিন পরে

চন্দ্র গেছে দুর পরবাসে

তারা জ্বলেনি ঐ আকাশে

মাটির পিদিম নিভে গেলে

বন্ধুরে দেখবো কি করে !!

ওরে ওরে হাওয়া থামনা রে

বন্ধু আসছে বহুদিন পরে

ওরে ওরে হাওয়া থামনা রে

বন্ধু আসছে বহুদিন পরে !!

বিজলী চমকালো না এসে

জোনাকগুলো নেইকো পাশে

পিদিমরে তুই নিভে গেলে

বন্ধুরে চিনবো কি করে !!

ওরে ওরে হাওয়া থামনা রে

বন্ধু আসছে বহুদিন পরে

পাগলা হাওয়ার তরে

মাটির পিদিম নিভু নিভু করে

ওরে ওরে হাওয়া থামনা রে

বন্ধু আসছে বহুদিন পরে

ওরে ওরে হাওয়া থামনা রে

বন্ধু আসছে বহুদিন পরে

হে পাগলা হে হাওয়া হে পাগলা

বন্ধু আসছে বহুদিন পরে

10. Likhte Parina

লিখতে পারিনা কোন গান আজ তুমি ছাড়া,

ভাবতে পারিনা কোন কিছু আর তুমি ছাড়া,

কি যে যন্ত্রনা এই পথচলা,

বিরহ স্মৃতি তোমাকে ঘিরে, তুমি জানোনা…

হারানো দিনগুলিতে ছিলে তুমি জড়িয়ে,

এই মনের সীমান্তে ছিল সুখ ছড়িয়ে…

কি যে যন্ত্রনা এই পথচলা,

বিরহ স্মৃতি তোমাকে ঘিরে, তুমি জানোনা…

লিখতে পারিনা কোন গান আজ তুমি ছাড়া,

ভাবতে পারিনা কোন কিছু আর তুমি ছাড়া…

আকাশে চাঁদ ছিল একা, পাহাড়ি ঝর্ণা ঝরা,

তাদের মনেতে ব্যথা ছিল কিনা বুঝিনি…

সে ব্যথা বোঝার আগে, হারিয়ে তোমাকে,

তোমাকে হারিয়ে বেদনা ঝরেছে হৃদয়ে…

কিযে বেদনা তুমি বোঝনা,

তোমাকে ভুলে থাকা কোনদিন বুঝি হল না…

লিখতে পারিনা কোন গান আজ তুমি ছাড়া,

ভাবতে পারিনা কোন কিছু আর তুমি ছাড়া,

কি যে যন্ত্রনা এই পথচলা,

বিরহ স্মৃতি তোমাকে ঘিরে, তুমি জানোনা…

লিখতে পারিনা কোন গান আজ তুমি ছাড়া

ভাবতে পারিনা কোন কিছু আর তুমি ছাড়া…

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *